কিভাবে পিসিতে ফোল্ডার লক/আনলক করবেন সফটওয়্যার ছাড়াই

আমরা মাঝে মাঝেই আমাদের গুরুত্বপূর্ন কিছু ডেটা আমাদের পিসিতে বিভিন্ন ফোল্ডারে রেখে দেই। ডেটাগুলো যেন আমরা ছাড়া অন্য কেউ ব্যবহার করতে না পারে সেজন্য আমরা ফোল্ডারগুলো লক করে রাখতে চাই। এজন্য হয়ত আমরা বিভিন্ন ‘ফোল্ডার লক’ সফটওয়্যারের সাহায্য নেই। কিন্তু আর্টিকেলটিতে আমরা এমন একটি ট্রিকস জানবো যেখানে মাত্র দুই মিনিটেরও কম সময়ের মধ্যে পিসির যেকোন ফোল্ডারকে শুধু সফটওয়্যার না, সাথে পাসওয়ার্ড ছাড়াও আমরা লক করে রাখতে পারি। পাসওয়ার্ড ছাড়াই লক, কথাটা শুনে একটু অদ্ভুদ সাথে বিষয়টি জানার একটু আগ্রহ বেড়েছে, তাই না? তাহলে দেরী না করে চলুন জেনে নেই ট্রিকসটি-

যেভাবে ফোল্ডার লক করবো

ফোল্ডারকে লক করার জন্য আমাদের যা করনীয় সেগুলো আমি স্টেপ বাই স্টেপ নিচে তুলে ধরেছি-

১। প্রথমেই আমরা যে ফোল্ডারটি লক করবো সেটা সিলেক্ট করে মাউসের রাইট বাটনে ক্লিক করে ‘Properties’ এ যাবো।

২।’Properties’ উইন্ডো আসার পর উইন্ডোটার উপরে থাকা ‘Security’ তে ক্লিক করার পর সেখানে থাকা ‘Edit’ এ ক্লিক করবো। দেখতে পাবো নতুন আরেকটি উইন্ডো আসছে।

৩। নতুন উইন্ডোতে থাকা ‘Administrators’ কে অবশ্যই সিলেক্ট করে আমি আবারও বলছি  ‘Administrators’ কে অবশ্যই সিলেক্ট করে ‘Permissions for Administrators’ এর সোজাসুজি লাইনে থাকা ‘Deny’ এর নিচের সকল ঘরগুলোতে টিকমার্ক  দিতে হবে এবং সবশেয়ে ‘Apply’ তে ক্লিক করে ‘Ok’ করে দিতে হবে।

ব্যস! হয়ে গেল পাসওয়ার্ড ছাড়াই ফোল্ডার লক। এখন লক করা ফোল্ডারে কেউ ঢুকতে চাইলে সে আর ফোল্ডারটি ওপেন করতে পারবে না যদি সে আমাদের এই ট্রিকসটি না জেনে থাকে।

যেভাবে ফোল্ডার আনলক করবো

ফোল্ডার আনলক আরও ইজি। আপনাকে শুধুমাত্র আমরা ফোল্ডারটি লক করার জন্য যে ‘Deny’ এর নিচের সকল ঘরগুলোতে টিকমার্ক  দিয়েছিলাম সেই টিকমার্কগুলো এবার উঠিয়ে ফেলতে হবে। আশা করি, ‘Deny’ লেখাটি কোথায় আছে সেটা জানেন। না জানলেও ক্ষতি নেই। উপরেতো উপায় দেওয়াই আছে।


আমরা এখন আর্টিকেলটির একদম শেষ প্রান্তে। তাহলে কেমন লাগলো আর্টিকেলের ট্রিকসটা? সেটা এখনি নিচে কমেন্ট করে জানিয়ে দিন। আমাদের সাপোর্ট করার জন্য আর্টিকেলটি শেয়ার করে দিন এবং আমাদের ইউটিউব চ্যানেল ‘TechJahaj‘ কে সাবস্ক্রাইব করুন। টেকজাহাজের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।