কিভাবে ইউটিউবে ছবি/ভিডিও কমেন্ট করবেন?

ইউটিউবে ছবি/ভিডিও কমেন্ট

ইউটিউবের বিভিন্ন ভিডিওতে আমরা কমেন্ট করি। তবে কিছু ভিডিও বিশেষ করে কোনো টিউটোরিয়াল টাইপ ভিডিওতে কোনো সমস্যায় পড়লে ভিডিও ক্রেটরকে বোঝানোর জন্য ছবি/ভিডিও কমেন্ট করার প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু দুঃখের বিষয় ইউটিউবে সাধারনত ছবি/ভিডিও কমেন্ট করার কোনো অপশন নেই। কিন্তু একটু ট্রিকস ব্যবহার করে আমরা সহজেই ইউটিউবে ছবি/ভিডিও কমেন্ট করতে পারি।

ইউটিউবে ছবি/ভিডিও কমেন্ট

খেয়াল করে দেখবেন, ইউটিউবের কমেন্টে আমরা কিন্তু বিভিন্ন লিংক শেয়ার করতে পারি। আর এটাকেই কাজে লাগিয়ে আমরা ইউটিউবে ছবি/ভিডিও কমেন্ট করবো। তাই প্রথমেই আমাদের একটি ক্লাউড সার্ভিস দরকার পড়বে যেখানে আমাদের প্রয়োজনীয় ছবি/ভিডিও আপলোড করবো।

ক্লাউড সার্ভিস হিসেবে আমরা গুগল ড্রাইভ,ড্রপবক্স, মেগা ইত্যাদি ব্যবহার করতে পারি। কিন্তু এগুলোতে আমরা ফ্রিতে একটি নির্দিস্ট স্টোরেজ পেয়ে থাকি এবং এগুলোতে আমরা ছবি/ভিডিও ইডিট করতে পারি না। তাই ক্লাউড সার্ভিস হিসেবে আমরা গুগল ফটোস ব্যবহার করবো যেখানে আমরা ফ্রিতে আনলিমিটেড স্টোরেজ পাবো এবং ছবি/ভিডিও ইডিটও করতে পারবো।

ছবি/ভিডিও আপলোড হয়ে যাবার পর সেটাকে ওপেন করলে নিচের দিকে আমরা ইডিট এবং শেয়ার করার লিংক পেয়ে যাবো।

ইউটিউবে ছবি/ভিডিও কমেন্ট
গুগল ফটোসে ছবি ইডিট

এবার ছবির বিভিন্ন অংশ চিহ্নিত করার জন্য ইডিটে ক্লিক করতে হবে এবং ইডিট করার সর্বশেষ অপশন More ক্লিক করলে সেখানে আমরা Markup নামে আরেকটি অপশন পাবো যেটাকে ক্লিক করলে আমরা ছবিতে নির্দিষ্ট অংশ চিহ্নিতকরন এবং লেখার অপশন পাবো।

গুগল ফটোসে ছবি ইডিট করার সময় ছবির একটি নির্দিষ্ট অংশ চিহ্নিত করা গেলেও ভিডিও ইডিটে এটা করা যায় না। তাই ডিডিওটি আপলোড করার আগে ভিডিওকে আমরা অন্য একটি অ্যাপ যেমন kinemaster দিয়ে ইডিট করতে পারি।

এবার ছবি/ভিডিও ইডিট হয়ে গেলে আমরা ছবি/ভিডিও এর শেয়ার লিংক কপি করবো এবং ইউটিউবের কমেন্ট গিয়ে লিংকটি শেয়ার করে দিবো। তবে শুধু লিংক শেয়ার না করে সাথে কিছু বিবরন দিবেন যাতে করে ভিডিও ক্রেটর বুঝতে পারে কেন আপনি এই ছবি/ভিডিওর লিংকটি কমেন্ট করছেন।


আমরা এখন আর্টিকেলটির একদম শেষ প্রান্তে। আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনাদের কোনো মতামত থাকলে সেটা অবশ্যই কমেন্ট করে আমাদের জানিয়ে দিন। আমাদের সাপোর্ট করার জন্য আর্টিকেলটি শেয়ার করে দিন এবং সোশ্যাল প্লাটফর্মে ফলো করুন। টেকজাহাজের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

সাগর মজুমদার
খুব ছোটবেলা থেকেই বিভিন্ন ইলেক্ট্রিক যন্ত্রপাতি খুটিয়ে দেখার শখ ছিল। এর জন্য অনেক বকাও খেয়েছি কিন্তু খুটিয়ে দেখার আনন্দের কাছে এটা কিছুই ছিল না। এভাবে আস্তে আস্তে টেকনোলজির সাথে খুব ভাল একটা সম্পর্ক গড়ে উঠে আর এই সম্পর্ক থেকে যা পেয়েছি, সেটা দিয়েই পূর্ণ করতে চলেছি টেকজাহাজকে। আশা করি আপনি আমার পাশে থাকবেন।