রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় গনমাধ্যমের উপর নিষেধাজ্ঞা ফেসবুক,টুইটার ও ইউটিউবের

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় গনমাধ্যমের উপর নিষেধাজ্ঞা ফেসবুক,টুইটার ও ইউটিউবের

রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে চলমান সংঘর্ষ নিয়ে ফেসবুক, টুইটারইউটিউব তাদের নিজস্ব প্লাটফর্মে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় গনমাধ্যমগুলোর উপর কিছু নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

ফেসবুকের নিরাপত্তা নীতির প্রধান নাথানিয়েল গ্লিচার টুইটারে এক টুইট করার মাধ্যমে জানিয়েছে যে, ফেসবুক প্লাটফর্মে এখন বিশ্বের যেকোনো জায়গায় বিজ্ঞাপন চালানো থেকে রাশিয়ান রাষ্ট্রীয় মিডিয়াকে নিষিদ্ধ করেছে।

সেই সাথে ফেসবুক ইউক্রেনের ইউজারদের জন্য “one click tool” চালু করেছে যার ফলে ইউক্রেন ইউজাররা তাদের প্রোফাইল লক করার মাধ্যমে তাদের বন্ধরা বাদে অন্য কেউ তাদের করা পোষ্ট, ছবি ও স্টোরি দেখতে পাবে না। এই একই ফিচার আফগানিস্তানে সংকট চলাকালিন সময়েও ফেসবুক চালু করেছিল।

এদিকে ইউটিউব তাদের প্ল্যাটফর্মে রাষ্ট্র-সমর্থিত রাশিয়ান গনমাধ্যমগুলিকে বিজ্ঞাপন এবং অর্থ উপার্জন থেকে ব্লক করছে। সেই সাথে ইউজারদের কাছে খুব কম পর্যায়ে এসব চ্যানেলকে রেকমেন্ড করছে। এছাড়া ইউক্রেন সরকারের অনুরোধ অনুযাযী রাশিয়ান গনমাধ্যম RT সহ আরও কিছু চ্যানেলকে ইউটিউব ইউক্রেনে ব্যান করেছে।

অন্যদিকে, টুইটার একটি টু্ইটের মাধ্যমে জানিয়েছে যে তারা সাময়িকভাবে রাশিয়া ও ইউক্রেনের সকল বিজ্ঞাপনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় গনমাধ্যমের উপর এমন নিষেধাজ্ঞার জবাবে রাশিয়ান সরকার টুইটারকে সম্পূর্নভাবে এবং ফেসবুককে আংশিকভাবে ব্যান করছে। তবে ইউটিউবের প্রতি এখনো এমন কোনো পদক্ষেপের বিষয়ে জানা যায়নি।


আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার মতামত নিচে কমেন্ট করুন। বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন এবং সোশ্যাল প্লাটফর্মে আমাদের ফলো করুন। টেকজাহাজের সাথে থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ 😊।

টেকজাহাজ মডার্ন প্রযুক্তিকে বাংলায় অনুসন্ধান করে। অ্যান্ড্রয়েড, উইন্ডোজ, টেকনিউজ, প্রযুক্তি ব্যাখ্যা, টিউটোরিয়াল, টিপস ইত্যাদি আর্টিকেল পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।
adbanner